Saturday, June 25, 2022

কর্মীদের এককালীন প্রণোদনার প্রস্তাব রোলস-রয়েসের

৪০ বছরের সর্বোচ্চ সীমায় পৌঁছেছে যুক্তরাজ্যের মূল্যস্ফীতির হার। আয়ের তুলনায় বেড়েই চলেছে নাগরিকদের জীবনযাত্রার ব্যয়। তাই বাড়তে থাকা এই অতিরিক্ত ব্যয় মোকাবেলায় সহায়তা করার জন্য কর্মীদের এককালীন ২ হাজার পাউন্ড প্রণোদনা দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রোলস-রয়েস হোল্ডিংস।

জানা গেছে, ১৪ হাজারেরও বেশি কর্মীকে এ অর্থ দেয়ার প্রস্তাব দেবে ব্রিটিশ উড়োজাহাজের ইঞ্জিন নির্মাতা এই প্রতিষ্ঠানটি। যদিও এ প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছে একটি ইউনিয়ন।

সুপারভাইজার ও কারখানা কর্মীদের এককালীন এ অর্থসহায়তা দেয়ার প্রস্তাব দেবে রোলস-রয়েস। আগস্টের বেতনের সঙ্গে তিন হাজার কর্মীর মাধ্যমে এ প্রণোদনা দেয়া শুরু হবে। পরবর্তী সময়ে অনুমোদন সাপেক্ষে ইউনিয়নভুক্ত বাকি ১১ হাজার কর্মীকে এ অর্থ দেয়ার কথা জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। তবে সংস্থাটির কর্মীদের প্রতিনিধিত্বকার প্ল্যাটফর্ম ইউনাইট বলেছে, আমাদের সদস্যরা যে সকল প্রতিবন্ধকতার মুখোমুখি হচ্ছে তার এবং জীবনযাত্রার প্রকৃত খরচের তুলনায় প্রস্তাবটি অনেক কম।

ইউনাইটের আঞ্চলিক সেক্রেটারি পরেশ প্যাটেল বলেন, রোলস-রয়েস এককভাবে এমন একটি সিদ্ধান্ত নিয়েছে যেখানে সিধান্ত নেয়ার আগে নিয়োগকর্তা ও ইউনিয়নগুলোর মধ্যে আলোচনার প্রয়োজন ছিলো।

যদিও রোলস-রয়েস এ প্রস্তাবকে কর্মীদের জন্য ন্যায্য ও ভালো চুক্তি বলে অভিহিত করেছে। এককালীন প্রণোদনার পাশাপাশি বেতন বাড়ানোরও প্রস্তাব দিয়েছে রোলস-রয়েস। সংস্থাটির একজন মুখপাত্র বলেন, যুক্তরাজ্যের কর্মী বাহিনীর ৭০ শতাংশ এ অর্থ পাবে। পাশাপাশি আমরা কারখানার কর্মীদের এক দশকের সর্বোচ্চ বার্ষিক বেতন বৃদ্ধির প্রস্তাব দিচ্ছি। ১১ হাজার ইউনিয়নভুক্ত কর্মীর গত মার্চ থেকে ৪ শতাংশ বেতন বাড়ানোর প্রস্তাব দেয়া হবে। তবে ইউনাইট বলছে, ৪ শতাংশ বেতন বাড়ানোর প্রস্তাবও প্রত্যাখ্যান করা হবে।

প্রস্তাব প্রত্যাখ্যানের প্রতিক্রিয়ায় রোলস-রয়েসের মুখপাত্র বলেন, এটি আমাদের সহকর্মীদের জন্য ভালো চুক্তি, যা ন্যায্য ও প্রতিযোগিতামূলক। ব্যতিক্রমী অর্থনৈতিক পরিস্থিতিতে তাদের সহায়তা করার জন্য এটি আমাদের তাত্ক্ষণিক প্রতিক্রিয়ার অংশ। এগুলো নিয়ে আমাদের কর্মীদের সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে যাব।

জ্বালানি বিল ক্রমশ বাড়তে থাকায় যুক্তরাজ্যের মূল্যস্ফীতি ৪০ বছরের সর্বোচ্চ উচ্চতায় পৌঁছেছে। এ অবস্থায় বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠান ক্রমবর্ধমান ব্যয় মোকাবেলায় সহায়তা করার অংশ হিসেবে এমন পদক্ষেপ নিচ্ছে। আবার কঠিন শ্রমবাজারে ব্যবসাগুলো নতুন কর্মী নিয়োগ ও বিদ্যমান কর্মীদের ধরে রাখতেও বেতন এবং আর্থিক সুবিধাগুলো বাড়ানো হচ্ছে।

সূত্র: বিবিসি

এমআর

এ রকম আরো কিছু খবর

Most Popular